Breaking News

চা দোকানির ছেলের মেডিকেলে ভর্তির দায়িত্ব নিলেন কাদের মির্জা



নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেধাবী ছাত্র নাঈমুর রহমান মিনহাজের ভাঙা মন জোড়া লাগিয়েছেন আলোচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

চা দোকানি আবু নাছেরের মেধাবী ছেলে মিনহাজ ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস কোর্সের প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় পটুয়াখালী সরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। তার মেধাক্রম ৩৯৪০তম।

কিন্তু সংসার চালাতেই হিমশিম খান তার দরিদ্র বাবা। তার উপর লকডাউনে দোকানও বন্ধ। এসব ভেবে একসময় চোখে অন্ধকার দেখছিলেন মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পাওয়া নাঈমুর রহমান মিনহাজ।

খবর পেয়ে মেধাবী মিনহাজের পড়ালেখার দায়িত্ব নিলেন মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে তিনি নিজের অফিসে ডেকে পাঠান মিনহাজ ও তার বাবা আবু নাছেরকে।

মিনহাজকে বুকে টেনে নিয়ে মনে সাহস রাখার কথা বলেন কাদের মির্জা। এ সময় মিনহাজের বাবার হাতে নগদ ২০ হাজার টাকাও তুলে দেন তিনি।

কাদের মির্জা বলেন, শুধু টাকার অভাবে একটি ফুটন্ত গোলাপ ঝরে পড়তে পারে না। সেই কথা চিন্তা করেই মিনহাজের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। এছাড়া তার পড়ালেখার সার্বিক দায়িত্ব নিজে নিয়েছেন বলেও নিশ্চিত করেন মেয়র কাদের মির্জা।

টাকা হাতে পেয়ে আবেগাপ্লুত আবু নাছের বলেন, আমি মেয়র সাহেবের কাছে কৃতজ্ঞ। আমি স্বপ্নেও ভাবিনি এই বিপদের সময় আমার পাশে কেউ দাঁড়াবে।তিনি আরও বলেন, আমি চাই সবার দোয়া নিয়ে আমার ছেলে ডাক্তার হয়ে একদিন দেশবাসীর সেবা করবে। গরিব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবে।

মিনহাজ বলেন, ফলাফল জানার পর বাবার অভাবের কথা চিন্তা করে মনটা ভেঙে গেছিল। সেই ভাঙা মনে জোড়া লাগিয়েছেন মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। আমি তার কাছে কৃতজ্ঞ। উনার দীর্ঘায়ু কামনা করছি।