Breaking News

‘আবার শাপলা চত্বরে গেলে পিঠের চামড়া থাকবে না’

হেফাজত ইসলামকে হুঁশিয়ারি দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেছেন, শাপলা চত্বরের আন্দোলন কিভাবে ভেঙে দিতে হয় তাও জানি। ক্ষমতা দখলের চেষ্টার জন্য আবার শাপলা চত্বরে গেলে পিঠের চামড়া থাকবে না। এবার শাপলা চত্বর নয় যে কোনও চত্বর দখল করতে গেলে আপনাদের অবস্থা ভাল হবে না।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে গণতন্ত্র বিজয় দিবস পালন উপলক্ষে আনন্দ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বিএনপি ও হেফাজতকে উদ্দেশ্য করে বলেন, বাংলাদেশের অবস্থা এখন সকলের জানা আছে। দেশে গণতন্ত্র আছে বলেই আপনারা টেলিভিশনে বক্তব্য দেন, গণতন্ত্র আছে বলেই আপনারা বলেন গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন করেন। আপনারা আপনাদের তথাকথিত রাজনীতি বন্ধ করুন। আপনারা পদ্মা সেতু নিয়ে মিথ্যাচার করেছেন।

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আপনারা যদি মানুষ ও দেশপ্রেমিক হয়ে থাকেন তাহলে ১৯৭১ সালে যে অপরাধ করেছিলেন তার জন্য জাতির কাছে ক্ষমা চেয়ে দেশের উন্নয়নের জন্য শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কাজ করুন। আর যদি মনে করেন উস্কানিমূলক কথা বলে ক্ষমতা দখল করবেন তাহলে বলি আমরাও ক্ষমতা দখল করতে জানি। আবার ক্ষমতা দখলের চেষ্টার জন্য শাপলা চত্বরের আন্দোলন কিভাবে ভেঙে দিতে হয় তাও জানি। পিঠের চামড়া থাকবে না। এবার শাপলা চত্বর নয় যে কোনও চত্বর দখল করতে গেলে আপনাদের অবস্থা ভাল হবে না।

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, সহ-সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র নায়ার কবির, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মহিউদ্দিন খান খোকন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম ভূঁইয়াসহ বিভিন্ন উপজেলার আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে নেতাকর্মীরা আনন্দ মিছিল নিয়ে ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বর মাঠে এসে জড়ো হন।