Breaking News

বাড়ি পাচ্ছে ঝুপড়িতে থাকা সেই হযরতের পরিবার



অবশেষে পথের ধারের ঝুপড়িতে থাকা সেই হযরতের পরিবার পাচ্ছে মাথা গোঁজার ঠাঁই। ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী

কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন গৃহহীন পরিবারটির দায়িত্ব নিয়েছেন। তাদেরকে ঠাকুরগাঁও সালন্দর ইউনিয়নে পুনর্বাসন করা হবে বলে জানিয়েছেন।

দেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগো নিউজে গতকাল শনিবার ৬ বছর ধরে রাস্তার পাশে ঝুপড়িতে বসবাস শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটি নজরে আসে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুনের।

রোববার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন সালন্দর সিংপাড়া গ্রামের ভূমিহীন রিকশাচালক হযরত আলীর ঝুপড়ি ঘরে হাজির হন। এ সময় তিনি শীতবস্ত্র প্রদানসহ সরকারি ঘর নির্মাণ ও পুনর্বাসনের আশ্বাস দেন পরিবারটিকে।

স্থানীয় বাসিন্দা সোলেইমান আলী বলেন, ইউএনও আব্দুল্লাহ মামুনের মতো সবাই যদি এভাবে মানবিকতা নিয়ে এগিয়ে আসতেন তাহলে এসব দরিদ্র পরিবার বেঁচে থাকতে পারত। আমি তার কাছে কৃতজ্ঞ হয়ে রইলাম তার এ মানবিকতার জন্য। সবাই যদি এমন কাজে এগিয়ে আসে তাহলে অনেক অসহায়, দুস্থ পরিবার উপকৃত হবে। এভাবে অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোই মানবিকতা।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, মানবিক প্রতিবেদনটি নজরে আসায় ছুটে এসেছি গৃহহীন হযরতের ঝুপড়ি ঘরে। রাস্তার পাশে খুবই কষ্টে দিনযাপন করছে তার পরিবার। সরকার যখন সব গৃহহীনের

পাকাঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সেখানে হযরত আলীর পরিবারের ঝুপড়ি ঘরে পড়ে থাকাটা অমানবিক। দ্রুত তাদের ঘর নির্মাণ ও পুনর্বাসনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।