Breaking News

টিকটকের নামে গণধর্ষণ: দুই কিশোর জেল হাজতে



গাজীপুরের টঙ্গী থেকে টিকটকে অভিনয়ের সুযোগ দেয়ার কথা বলে ঢাকায় এনে গণধর্ষণের ঘটনায় দুই কিশোরকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন আদালত। রোববার (২৭ ডিসেম্বর) বিকেলে অভিযুক্ত মো. শিশির ব্যাপারী ও জুনায়েদ ইসলাম ফাহিমকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১ তোলা হলে মো. ইলিয়াস রহমান এ আদেশ দেন।

এর আগে শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর গেন্ডারিয়া, নারিন্দার শরৎচন্দ্র রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই দুই কিশোরকে গ্রেফতার করে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ।

পুলিশ ও নির্যাতনের শিকার কিশোরীর স্বজনরা জানান, ভুক্তভোগী স্থানীয় টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকার একটি বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে টিকটক সেলিব্রেটি পরিচয় দানকারী শিশির ব্যাপারীর সঙ্গে সখ্যতা গড়ে উঠে ভুক্তভোগীর। অভিনয়ের আশ্বাস দিয়ে ২৩ ডিসেম্বর বিকেলে টঙ্গী থেকে ওই কিশোরীকে ঢাকার গেন্ডারিয়া এলাকায় নিয়ে যান অভিযুক্তরা। পরে একটি বাসায় আটকে তাকে গণধর্ষণ করা হয়।

কিশোরীর মায়ের সাধারণ ডায়েরির ভিত্তিতে পুলিশ কিশোরী উদ্ধারে অভিযানে নামে। শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাকার হাতিরঝিল মধুবাগ এলাকা থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়। পরে তিনজনসহ আরো কয়েকজনকে আসামি করে টঙ্গী পূর্ব থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগীর মা।

এদিকে ভিকটিমের দেয়া তথ্যে ঢাকার গেন্ডারিয়া, নারিন্দার শরৎচন্দ্র রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দুই কিশোরকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার জাকির হাসান।

তিনি বলেন, সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে গাজীপুর আদালতে তোলা হলে, আদালত তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন। সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) রিমান্ড শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।