সিঙ্গাপুরে একদিনে ১৪ প্রবাসী বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত



বাংলাদেশি এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। চারজন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে কর্মক্ষেত্রে যোগদান করেছেন। বাকিরা এখনও চিকিৎসাধীন।সিঙ্গাপুরে নতুন করে ৬৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এর

মধ্যে ১৪ জনই বাংলাদেশি। শুক্রবার ১৪ জনসহ এখন পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে মোট ৪৮ জন

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সিঙ্গাপুরে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের

সংখ্যা ১১১৪ জন৷ আজ আরও ১৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন৷ এই নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ২৮২ জন। ৩ এপ্রিল করোনায়

আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃ;;ত্যু হয়েছে৷ এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুরে পাঁচজনের মৃ;ত্যু হয়েছে৷

আক্রান্ত ৬৫ জনের মধ্যে নয়জন বাইরের দেশ থেকে এসেছে। তারা সর্বশেষ ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা, মধ্যপ্রাচ্য ও আসিয়ানভুক্ত দেশ থেকে ভ্রমণ করে সিঙ্গাপুর ফিরেছেন।

৫৬ জন স্থানীয়ভাবে আক্রান্ত হয়েছে৷ ৪০ জন পূর্বের ক্লাস্টারের কিংবা রোগীদের সঙ্গে

যোগাযোগ রয়েছে। ১৬ জনের তথ্য এখনো অজানা। তবে আজ নতুন তিনটি ক্লাস্টার চিহ্নিত করা হয়েছে৷

ক্লাস্টার তিনটি হলো Ce la vi rooftop bar, সিঙ্গাপুর ক্রিকেট ক্লাব ও Integrated development তাছাড়া পূর্বের ক্লাস্টার পংগল S11 ডরমিটরি থেকে আজকেও ১১ জন

শনাক্ত করা হয়েছে৷ এই নিয়ে S11 ডরমিটরি থেকে মোট ২৪ জন করোনাভাইরাসে

আক্রান্ত হলেন। তুগান ওয়েস্টলাইট ডরমিটরিতে এই পর্যন্ত ১৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

৪৭৩ জন এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন৷ ২৫ জনের অবস্থা গুরুতর। তাদেরকে আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে৷ ৩৫৪ জনের অবস্থা ক্লিনিক্যালি ভালো কিন্তু

পরীক্ষায় করোনাভাইরাস পজিটিভ হওয়ায় তাদেরকে অন্য রোগীদের কাছ থেকে আলাদা

রাখা ও যত্নের জন্য কনকর্ড ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতাল, মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল, গ্লেনেগল হাসপাতাল এবং দ্য কমিউনিটি আইসোলেশন ফ্যাকাল্টি অ্যাট ডিজোর্টে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।