মা-বাবাকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে মেয়েকে ধর্ষণ



রিশালের মুলাদীতে ঝাড়-ফুঁক দেয়ার অজুহাতে মা-বাবাকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করেছে এক ওঝা।
এ ঘটনায় অভিযুক্ত হুমায়ুন কবির সরদারকে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। হুমায়ুন মুলাদী উপজেলার শফিপুর ইউনিয়নের ব্রজমোহন গ্রামের জয়নাল সরদারের ছেলে।

এর আগে, সোমবার বিকেলে হুমায়ুনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী শিশুর বাবা। ভুক্তভোগী শিশু একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

শিশুটির বাবা বলেন, আমার মেয়ের বিভিন্ন সমস্যা থাকায় সোমবার দুপুরে হুমায়ুনকে বাড়িতে ডেকে আনা হয়। এরপর ঘরের একটি কক্ষে মেয়েকে ঝাড়-ফুঁক দিচ্ছিল হুমায়ুন। এ সময় ঘর থেকে আমাদের স্বামী-স্ত্রীকে বের করে দেয়া হয়। এ সুযোগে হুমায়ুন আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি টের পেলে তাকে ধাওয়া করে ধরে পুলিশে দেয় এলাকাবাসী।

মুলাদী থানার ওসি ফয়েজ উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগী শিশুর বাবা। ওই মামলায় হুমায়ুনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপতালে পাঠানো হয়।