সব রেকর্ড ছাড়িয়ে ফ্রান্সে একদিনেই ১৩৫৫ জনের মৃত্যু



প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভয়াল ছোবলে ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১ হাজার ৩শ ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ইউরোপের দেশটিতে মৃতের সংখ্যা মোট ৫ হাজার ৩শ ৮৭ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে হাসপাতালে ৪৭১ ও রিটায়ারমেন্ট হোমে ৮৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ফ্রান্সের স্বাস্থ্য মহাপরিচালক জেরোম সলোমন করোনা নিয়ে দেশটির প্রতিদিনের ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান। এই প্রথম দেশটিতে হাসপাতাল ও রিটায়ারমেন্ট হোমে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সংখ্যা একসঙ্গে জানানো হলো। এতদিন শুধু হাসপাতালে মারা যাওয়াদের সংখ্যা বলছিল ফ্রান্স।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে দেখা গেছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নার্সিং হোমগুলোতে প্রায় ৮৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আগের দিনের চেয়ে হাসপাতালে মৃত্যুর সংখ্যা ১২ শতাংশ বেড়েছে বলেও জানান তিনি।

সলোমন সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, নার্সিং হোমে করোনায় মারা যাওয়া রোগীর সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে; কারণ দেশটির কর্তৃপক্ষ এখন পুরো দেশের রিটায়ারমেন্ট হোম থেকে তথ্য সংগ্রহ করছে।

এদিকে দেশটিতে নতুন করে দুই হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। সবমিলিয়ে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৯ হাজার ১০৫ জনে। আর সুস্থ হয়ে উঠেছে ছয় হাজার ৩৯৯ জন।

উল্লেখ্য সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ লাখ ১৫ হাজার ৪৬৬ জন। প্রাণ হারিয়েছেন ৫৩ হাজার ১৯০ জন এবং আক্রান্তদের ২ লাখ ১২ হাজার ২২৯ জন সুস্থ হয়েছেন।

করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ২ লাখ ৪৪ হাজার ৩২০ জন। সবচেয়ে বেশি মারা গেছে ইতালিতে, ১৩ হাজার ৯১৫ জন।