দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ক’টি টি-২০ ম্যাচ খেলবে টিম ইন্ডিয়া? জানালেন সৌরভ



ডন ব্র্যাডম্যানের দেশে জোর কদমে চলছে ওয়ানডে সিরিজের প্রস্তুতি। আর তার মধ্যেই দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টিম ইন্ডিয়ার সিরিজের খুঁটিনাটি জানিয়ে দিলেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (BCCI) সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। বিশ্বজয়ী দলের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবেন বিরাট কোহলিরা।

মঙ্গলবারই বিসিসিআইয়ের তরফে জানানো হয়, চোটের কারণে অস্ট্রেলিয়ায় প্রথম দুটি টেস্টে রাখা হচ্ছে না রোহিত শর্মা ও ইশান্ত শর্মাকে। আর তারপরই জানা গেল, ইংল্যান্ডের সঙ্গে ক’টি ম্যাচের সিরিজ খেলবে টিম ইন্ডিয়া। এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সৌরভ জানান, ইয়ন মর্গ্যানরা ভারত সফরে এসে তিন ম্যাচের ওয়ানডে, পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং চারটি টেস্ট খেলবে। আবার পরে ইংল্যান্ডের মাটিতে পাঁচ টেস্টের সিরিজ খেলতে যাবেন কোহলিরা। চলতি বছর সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে ভারত সফরে আসার কথা ছিল জো রুটদের। কিন্তু করোনার কারণে তা আগেই বাতিল হয়ে যায়। তাই ঠিক হয়, জানুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে টেস্ট ও সীমিত ওভারের সিরিজ আয়োজন করা হবে। পরের বছরই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তাই ছোট ফরম্যাটে বেশি জোর দিচ্ছে বোর্ড। তবে সিরিজের দিনক্ষণ এখনও ঘোষণা করা হয়নি।করোনার আতঙ্ক উপেক্ষা করেই আমিরশাহীতে আইপিএল আয়োজন করে চূড়ান্ত সাফল্য পেয়েছে বিসিসিআই। বিভিন্ন প্রান্তের ক্রিকেটারদের এনে কোয়েরান্টাইনে রাখা, কোভিড টেস্ট করানো থেকে জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিয়মবিধি পালন- গোটা প্রক্রিয়া নেহাত সহজ ছিল না। বিসিসিআই সভাপতির কাছে তাই আগামী জানুয়ারিতে ঘরের মাটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন তুলনামূলক সহজই। সৌরভ বলেন, “দ্বিপাক্ষিক সিরিজের আয়োজন করা অপেক্ষাকৃত সহজ। কারণ এক্ষেত্রে সফরকারীর সংখ্যাটা অনেকটাই কম। ৮টা ১০টা দলকে একসঙ্গে সামলাতে গেলে বিষয়টা বেশি কঠিন হয়ে পড়ে। তবে এক্ষেত্রেও আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। কারণ করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আছড়ে পড়ার কথাও শোনা যাচ্ছে।”

একইসঙ্গে সৌরভ আরও একবার জানিয়ে দিলেন, আগামী বছর ভারতের মাটিতেই আইপিএলের আসর বসানোর চেষ্টা করছে বিসিসিআই। দাদার কথায়, “আমি সকলকে বলি, আমাদের দেশের ক্রিকেট সমর্থকদের কাছে আইপিএলটা কতখানি ভালবাসার টুর্নামেন্ট, তা এখানে না থাকলে অনুভব করা যায় না। তাই চেষ্টা করব পরের আইপিএল যাতে এখানেই হয়।