বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন ধোনি!

ভারতের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে ক্রিকেটবিশ্বকে চমকে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

‘ক্যাপটেন কুল’কে এখন শুধু দেখা যাবে আইপিএলে।

অবসরকালীন সময়ে কি করার পরিকল্পনা রয়েছে ধোনির এ নিয়ে ভারতে নতুন জল্পনা শুরু হয়েছে।

আর সেই জল্পনাকে আরও চাঙ্গা করে দিলেন ভারতের সরকার দলীয় (বিজেপি) সংসদ সদস্য সুব্রহ্মণ্যম স্বামী।

ধোনির অবসরের পরদিনই তিনি এমন টুইট করলেন যে, প্রশ্ন উঠেছে সতীর্থ গৌতম গাম্ভীরের মতো বিজেপিতে যোগ দেবেন ধোনি?

রোববার বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্য স্বামী টুইট করেন, ‘মহেন্দ্র সিং ধোনি ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন, কিন্তু সব কিছু থেকে নয়। নানান প্রতিকূলতার মধ্যে ধোনির লড়াই করার ক্ষমতা, দলকে নেতৃত্ব দেয়ার যে দক্ষতা আমরা ক্রিকেট মাঠে দেখেছি, তা ব্যবহারিক জীবনেও প্রয়োজন। ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে লড়াই করা উচিত ধোনির।’

এদিকে ধোনির অবসরের পর তাকে নিয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের করা টুইটটিও এই গুঞ্জনের পালে হাওয়া দিচ্ছে।

টুইটে অমিত শাহ লেখেন, ‘নিজের খেলা দিয়ে ধোনি লাখ লাখ মানুষকে আনন্দ দিয়েছে। আশা করছি, আগামী দিনে ভারতীয় ক্রিকেটকে আরও অনেক শক্তিশালী করে তুলতে এগিয়ে আসবেন তিনি। তার ভবিষত্যের জন্য অনেক শুভেচ্ছা রইল। বিশ্বক্রিকেট হেলিকপ্টার শটটি মিস করবে।’

বিজেপি নেতার এই টুইটে ভারতের নেটিজেনদের একাংশের ধারণা, গেরুয়া শিবিরে ধোনির যোগদান এখন মাত্র সময়ের ব্যাপার।

এরইমধ্যে মিত শাহের সঙ্গে ধোনি করমর্দন করছেন এমন একটি পুরনো ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেয় ভারতীয় নেটিজেনরা।

ইতিমধ্যে অনেকেই টুইটারে, ফেসবুকে প্রশ্ন ছুড়ছেন, তবে কি ধোনি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন?

কেউ কেউ আরেকটু বাড়িয়ে অনুরোধ জানাচ্ছেন, ‘ধোনিকে ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই।’

এই নতুন আলোচনার বিষয়ে পর্যন্ত ধোনির পক্ষ থেকে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

তথ্যসূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া, এই সময়