লকডাউন ভাঙার ২ দিন পরই মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭১০৩

গত ২৬ এপ্রিল খোলে দেয়া হয়েছে দেশের গার্মেন্টস শিল্পকারখানা গুলো। চাকরি বাঁচাতে তাই লকডাউন ভেঙে গ্রাম থেকে শহরে ফিরেছেন লাখ লাখ পোশাক শ্রমিক। গাঁদাগাদি করে যাচ্ছেন কর্মক্ষেত্রে। ব্যহত হচ্ছে স্বাস্থ্য সুরক্ষা কিংবা সামাজিক দুরত্ব। দায়সাড়াভাবে শ্রমিকদেরকে হুমকির মুখে ফেলে দিছেন গার্মেন্টস মালিকেরা।

পোশাক কারখানা খোলে দেয়ার একদিন পর থেকেই দেশে করোনা সংক্রমনের রেকর্ড হতে শুরু করেছে। মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে দেয়া তথ্যমতে দেশে একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৫৪৯ জন। আর মোট ছিল ৬ হাজার ৪৬২ জন।

এর পরদিন বুধবার (২৯ এপ্রিল) একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬৪১ জনে। যার ফলে মোট সংখ্যাটা এখন ৭ হাজার ১০৩ জনে।

এভাবে লাফিয়ে লাফিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় বাংলাদেশ কোন অবস্থানে গিয়ে দাঁড়াবে তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছেন বিশিষ্ট জনেরা।