Breaking News

করোনায় আক্রান্ত চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা



করোনা আক্রান্ত হয়েছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বৈশাখী বড়ুয়া।
বুধবার জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. শাখাওয়াত উল্লাহ এই খবর নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়া হাজীগঞ্জ উপজেলারই আরেকজনসহ মোট দুইজন নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। সিভিল সার্জন জানিয়েছেন, করোনা আক্রান্ত ইএনও তার নিজ বাসভবনে থেকে চিকিৎসা সেবা নিবেন। তার অফিস রুম ও বাস ভবন লকডাউন করা হয়েছে। একই সাথে তার সংস্পর্শে আসা ১২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হবে করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করার জন্য।

এই নিয়ে চাঁদপুরে মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাড়িঁয়েছে মোট ১৭ জনে। এর মধ্যে দুইজন করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে এবং ৭জন চিকিৎসা নিয়ে করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে ৮জন রোগি করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সিভিল সার্ভিস অফিস জানায়, গত ২৭ এপ্রিল ইউএনও বৈশাখী বডুয়ার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। ২৮ এপ্রিল ঢাকার শিশু হাসপাতালে টেস্ট করা হলে তার রিপোর্ট করোনা পজেটিভ আসে। আজকে মোট চাঁদপুরে মোট ৪০টি রিপোর্টের মধ্যে ইএনওসহ দুইজনের রিপোর্ট পজেটিভ এসেভে বাকি ৩৮টি রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

দেশে করোনা সংক্রমণের পর থেকেই চাঁদপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের মধ্যে বৈশাখী বড়ুয়া সংক্রমণ প্রতিরোধ কার্যক্রমে বেশ সরব ছিলেন। তার নেতৃৃত্বে হাজীগঞ্জ উপজেলায় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

এর আগে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল। বর্তমানে তিনি করোনামুক্ত। এছাড়া চাঁদপুরের কয়েকজন পুলিশ সদস্য ও ম্যাজিস্ট্রেটের করোনা টেস্ট করে রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।