রোজায় সুস্থ থাকতে হলে যেসব খাবার খাবেন

রমজান মাসে সবাই রান্না ও খাবার খাওয়ার প্রতিযোগিতায় নেমে পড়ে। তবে আপনি জানেন কী– এসব ভাজা-পোড়া ও গুরুপাক খাবার স্বাস্থ্যের জন্য মোটেও ভালো নয়।

সারাদিন রোজা রেখে পাকস্থলী খুব ক্ষুধার্ত ও দুর্বল থাকে। এ সময় এত রকম গুরুপাক খাবার একসঙ্গে খেলে পেটের সমস্যা, মাথাব্যথা, দুর্বলতা, অবসাদ, আলসার, অ্যাসিডিটি ও হজমের সমস্যা হতে পারে। আবার ওজনও বেড়ে যায়।

তাই রোজায় সুস্থ থাকতে নিয়ম মেনে খাবার খেতে হবে।

কী খাবেন?

১. ডিমের কুসুম, কলিজা, মাছের ডিম, খাসি, গরুর চর্বিযুক্ত মাংস, হাঁস-মুরগির চামড়া, হাড়ের মজ্জা, ঘি, মাখন, ডালডা, সয়াবিন, গলদা চিংড়ি, নারিকেল।

২. আঁশযুক্ত খাবার স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। তাই খেতে পারেন সব রকমের ডাল, পুঁইশাক, খোসাসহ সবজি যেমন ঢেঁড়স, বরবটি, কচুরলতি, শিম।

৩. টকজাতীয় খোসাসহ পেয়ারা, জাম্বুরা, আমলকী খেতে পারেন।

৪. সব রকমের মাছ খেতে পারেন। বিশেষ করে সমুদ্রের মাছ, ছোট মাছ, মাছের তেল, উদ্ভিজ তেল, সানফ্লাওয়ার ওয়েল, সয়াবিন তেল ও দুধ।

যেসব খাবার কম খেতে হবে

১. শর্করাজাতীয় খাবার ভাত, রুটি, আলু ও মিষ্টি আলু।

২. মিষ্টি ফল যেমন– পাকা আম, টাটকা ফল ও পাকা পেঁপে।

৩. মিষ্টি খাবার ফিরনি, সেমাই।

যেসব খাবার একেবারেই খাওয়া উচিত নয়

বিভিন্ন ধরনের ফাস্টফুট, কেক, পুডিং, স্যান্ডউইচ, আইসক্রিম, বোতলজাত কোমল পানীয়।