শুধু করোনা না, ১০ সর্বনাশা হুমকিতে মানবজাতি!



বর্তমানে বিশ্বজুড়ে প্রলয় সৃষ্টি করেছে আণুবীক্ষণিক জীব নভেল করোনারভাইরাস। গুঁড়িয়ে দিচ্ছে মানবজাতির সভ্যতা ও বিজ্ঞানের দম্ভ। কোন ওষুধ নেই, প্রতিষেধক নেই। শুধুই মৃত্যুর অপেক্ষা। তবে সায়েন্স অ্যালার্ট ডটকম দিচ্ছে আরো ভয়ানক খবর। শুধুই করোনা নয়, মানবজাতির সামনে আরো ১০ সর্বনাশা হুমকি রয়েছে।

বছরের মাত্র চার মাস অতিবাহিত হয়েছে। এরই মধ্য মানবজাতির অস্তিত্ব ঝুঁকির মুখে পড়েছে। এবছর যে ভয়ঙ্কর দুর্যোগগুলো এরই মধ্যে আমাদের দেখা হয়ে গেছে সেগুলো হল- মারাত্মক খরা, ধ্বংসাত্মক দাবানল, বিপজ্জনক ধোঁয়া, শুকনো নগরী। এই ঘটনাগুলো সবই মানবসৃষ্ট জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে দেখা দিয়েছে।

উপরের বিষয়গুলো বিচ্ছিন্ন হুমকির মতো মনে হলেও এগুলো একটি বৃহৎ সার্কেলের অংশ যার টুকরাগুলি একে অপরের সাথে সংযুক্ত। কমিশন ফর হিউম্যান ফিউচার কর্তৃক আজ প্রকাশিত ‘একবিংশ শতাব্দীতে বেঁচে থাকার চ্যালেঞ্জ ও সমৃদ্ধি’ শিরোনামের একটি প্রতিবেদনে মানবজাতির জন্য ১০টি সম্ভাব্য বিপর্যয়ের কথা বলা হয়েছে। এগুলো সবই চলতি বছরে একটার পর একটা আসতেই থাকবে। এই ঝুঁকিগুলি হল-

১) প্রাকৃতিক সম্পদের হ্রাস, বিশেষত পানির অভাব দেখা দেবে।

২) বাস্তুতন্ত্রের পতন এবং জীববৈচিত্র্য হ্রাস।

৩) পৃথিবীর বহন ক্ষমতা থেকে মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি।

৪) গ্লোবাল ওয়ার্মিং এবং মানব-সৃষ্ট জলবায়ু পরিবর্তন।

৫) বায়ুমণ্ডল এবং মহাসাগর সহ পৃথিবী ব্যবস্থার রাসায়নিক দূষণ।

৬) খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা বৃদ্ধি এবং পুষ্টির গুণাগুণ ব্যর্থ।

৭) পারমাণবিক অস্ত্র এবং গণ-বিধ্বংসী অন্যান্য অস্ত্রের প্রতিযোগিতা।

৮) নতুন এবং অপ্রচলিত রোগের মহামারি।

৯) শক্তিশালী, অনিয়ন্ত্রিত নতুন প্রযুক্তির আবির্ভাব।

১০) জাতীয় এবং বিশ্বব্যাপী এই ঝুঁকিগুলি প্রতিরোধমূলকভাবে বুঝতে এবং কার্যকর করতে ব্যর্থতা।

মানুষের প্রযুক্তিজ্ঞানের অপপ্রয়োগ মানবজাতির অস্তিত্বের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। পারমাণবিক যুদ্ধ, বৈশ্বিক উষ্ণায়ন ও জিনপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তৈরি করা কৃত্রিম ভাইরাসের মতো মানবসৃষ্ট সমস্যার কারণে গোটা মানবজাতি আজ ভয়ানক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

সূত্র- সায়েন্স অ্যালার্ট।