“পেটের দায়েই মানুষ বের হচ্ছে, তাদের বিষয়টাও আমাদের ভাবা উচিত”- সাকিব



করোনা ভাই’রাসের এমন ভ’য়াবহতার মধ্যেও দেশের মানুষের বাইরে যাওয়ার প্রবণতা খুব একটা কমেনি। সাকিব মনে করেন এদের বেশিরভাগই পেটের দায়ে ঘর থেকে বের হচ্ছেন। দ্য সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট উদ্বোধন করতে লাইভে এসে এসব কথা বলেন সাকিব।

সাকিব বলেন, “স্বাভাবিকভাবে অনেকেই বলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কি কারণে বাইরে যাচ্ছে। আমরা ঠিক জানছিনা কি কারণে বা কতটা প্রয়োজনে বের হচ্ছে যতক্ষণ পর্যন্ত জানছিনা ততক্ষণ বলাটা খুব সহজ আমাদের জন্য যারা স্বচ্ছল আছি। আমার মনে হয় এ ব্যাপারটা আমাদের সবারই চিন্তা করা উচিৎ, হ্যাঁ সবাই যে খুব প্রয়োজনেই বের হচ্ছে তা না। কিছু সংখ্যক মানুষ আছে যারা অত প্রয়োজন ছাড়াও বের হচ্ছে।”

‘অনেকেই আছে আমি যদি বিশেষ করে ঢাকার কথাই বলি যে পরিমান বস্তি আছে তারাতো ঘরের ভেতরেই সামজিক দূরত্ব বজায় রাখতে পারছেনা। তারা বাইরে এটা কীভাবে মেনে চলবে তাদের জন্য এটা বড় মুশকিল যাদের একদিন বাইরে না গেলে খাবারটা আনতে পারেনা। এ জায়গায়াটায় আমরা সবাই মিলে যদি সাহায্য করতে পারি অবদান রাখতে পারি। আমার কাছে মনে হয় সাময়িকভাবে এই বিপদ থেকে উতরাতে পারবো।’

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে দিনে এনে দিনে খাওয়া লোকজন কঠিন সময় পার করছে উল্লেখ করে সাকিব আহ্বান জানান অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর, ‘আমাদের দেশে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এমন যে যারা দিন আনে দিন খায় তাদের জন্য খুবই দুর্বিসহ ব্যাপার। তাদের জন্য ঘরে বসে থাকাটা খুবই ক’ষ্টকর। আমাদের জন্য বোঝা কঠিন যে তারা কী কারণে বাইরে যাচ্ছে বা বের হচ্ছে।’

‘কিন্তু আমাদের সবারই চেষ্টা করা উচিৎ যে এই মহামা’রী থেকে মুক্তি পাওয়া। সে জন্য সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টাই আমাদের সাহায্য করতে পারে। সুতরাং আলহামদুলিল্লাহ আমরা যারা স্বচ্ছল মানুষ আছি তাদের দায়িত্ব অনেক বেশি যারা সুবিধাবঞ্চিত আছে তাদের যেন সাহায্য করে এই মহামারী থেকে উতরাতে পারি এবং স্বাভাবিক জীবন যাপনে ফিরতে পারি।’