বাংলাদেশের জন্য দুঃসংবাদ: দেশে তরুণরাই করোনার মূল টার্গেট!



চীনে করোনার প্রকোপ শুরু হওয়ার পর থেকেই বলা হচ্ছিল যে, ষাট বা সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধ’রাই করোনায় আ,ক্রা’ন্ত হচ্ছে বেশি। মৃ’ত্যুর হারও তাদেরই বেশি। অন্যদিকে তরুণদের রো’গ প্রতি’রোধ ক্ষমতা বেশি হওয়ায় করোনা তাদের খুব একটা কাবু করতে পারে না বলে জানাচ্ছিলেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু বাংলাদেশে এসব থিওরি মানছে না করোনা। অন্তত আজ পর্যন্ত যে তথ্য তাতে এমনটাই দেখা যাচ্ছে।
তরুণরাই করোনার মূল টার্গেট- বাংলাদেশে তরুণরাই হয়ে উঠেছে করোনার মূল টা’র্গেট। গত ২৪ ঘন্টায় দেশে ১১২ জন করোনা আ,ক্রা’ন্ত রো,গী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ৬৬ জনের বয়স ২০ থেকে ৫০ এর মধ্যে। আর ৬১ জনেরই বয়স ৪০ এর নীচে। আজ বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এসব তথ্য জানানো হয়।

ব্রিফিংয়ে রো’গতত্ত্ব, রো’গনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, ১১২ জন আ,ক্রা’ন্তের মধ্যে ১০ বছরের নিচে ৩ জন, ১০ থেকে ২০ বছর বয়সী ৯ জন, ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী ২৫জন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী ২৪ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ১৭ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ২৩ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ১১ জন।

এখন পর্যন্ত দেশে করোনায় আ,ক্রা’ন্ত রো,গী শনাক্ত হয়েছেন ৩৩০ জন। এদের মধ্যে ২১৩ জনের বয়সই পঞ্চাশের নীচে।জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক ছাত্রী করোনাভাইরাসে আ’ক্রা’ন্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে ওই শিক্ষার্থীর শরীরে কভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে রো’গতত্ত্ব, রো’গ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইসিডিডিআরবি) । এর আগে সোমবার ওই ছাত্রীর করোনা পরীক্ষা করা হয়। তিনি পরিবারের সঙ্গে রাজধানীর উত্তরাতে থাকেন।

করোনাভাইরাস আ’ক্রা’ন্ত ছাত্রী জানান, গত ৭-৮ দিন ধরে তার জ্বর ও মাথা ব্য’থা ছিল৷ পরিবারের সদস্যদের কথায় সোমবার আইইডিসিআর হটলাইনে ফোন দিই। তারা আমার বাসা উত্তরা থেকে আইসিডিডিআরবিতে পরীক্ষা করতে নিয়ে যায়৷ পরে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে আমাকে ফোন করে করোনাভাইরাস পজিটিভ বলে আইসিডিডিআরবি নিশ্চিত করে।

জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. দিলারা ইসলাম শরীফ বলেন, একটু আগেই খবর পেয়েছি আমার বিভাগের এক শিক্ষার্থী করোনায় আ’ক্রা’ন্ত হয়েছে। এখন যেহেতু রাত হয়ে গেছে কালকে আমি তার খোঁজ খবর নিব এবং প্রয়োজনীয় গ্রহণ করব।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, জগন্নাথের এক শিক্ষার্থীর করোনায় আ’ক্রা’ন্ত হওয়ার খবর শুনেছি। আমরা তার খোঁজখবর নিচ্ছি।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মীজানুর রহমান বলেন, আমরা সার্বক্ষণিক তার খোঁজখবর নিচ্ছি। সে উত্তরায় তার পরিবারের সঙ্গে আছে। কাল তাকে আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষ আইসোলেশনে নিয়ে যাবে, তার পরিবারও হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকবে। আমরা বলেছি, যে কোনো সহযোগিতায় আমাদেরকে জানাতে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে সব ধরনের সহযোগিতা করবে।

করোনাভাইরাসের কা’রণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস ও পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ঘোষণা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ বিভাগ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করানাভাইরাসের কা’রণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস ও পরীক্ষাসমূহ পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। পুনরায় ক্লাস ও পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার অন্তত তিনদিন আগে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের জানানো হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসসমূহ আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি সেবা কার্যক্রম এই ছুটির আওতামুক্ত থাকব।

ছুটিকালীন শিক্ষার্থীদেরকে আচরণের সকল শিষ্টাচার অনুসরণ করে নিজ নিজ বাসায় (আবাসিক হল বন্ধ রয়েছে) অবস্থান করতে পরামর্শ দিয়েছে ঢাবি কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদর নিজ উদ্যোগে নিজের পাঠক্রম ও সামগ্রিক বিষয় অধ্যয়ন চর্চা অব্যাহত রাখতে এবং সীমিত পরিসর হলেও শরীরচর্চার বিষয়ে যত্নশীল থাকার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।